You are currently viewing অন-পেজ এসইও কি? বেস্ট টেকনিক ফর অন পেজ অপ্টিমাইজেশান

অন-পেজ এসইও কি? এসইও টেকনিক ফর অন পেজ অপ্টিমাইজেশান

অন-পেজ এসইও (অন-সাইট এসইও নামেও পরিচিত)। একটি ওয়েবসাইটকে সার্চ ইঞ্জিনে র‌্যাঙ্কিং করতে এবং অর্গানিক ট্রাফিক বাড়ানোর জন্য ওয়েবপেজ অপ্টিমাইজ করার অনুশীলনকে বোঝায়। মূলত অন-পেজ এসইও তে হেডিং, এইচটিএমএল ট্যাগ, মেটা ডেসক্রিপশন এবং ছবি বা ভিডিও কে কিভাবে অপ্টিমাইজ করা যান সেই সকল বিষয় নিয়ে কাজ করে থাকি। 

নিচের দেয়া কৌশলগুলো ফলো করলে আপনি বুঝতে পারবেন যে, কিভাবে অন পেজ এসইও অপ্টিমাইজ করা হয়। 

অন পেজ অপ্টিমাইজেশান

অন-পেজ এসইও তে সাধারণত ওয়েবপেজ এর এলিমেন্টসগুলো নিয়ে কাজ করা হয়ে থাকে। যেমন-

  • টাইটেল 
  • মেটা ডেসক্রিপশন 
  • হেডার ট্যাগ

অন-পেজ এসইও অপ্টিমাইজেশান বেশ সহজ একটি কাজ । অন-পেজ এসইও অপ্টিমাইজেশান এর জন্য আপনাকে কি কি করতে হবে তার কিছু ব্যবহারিক পরামর্শ নিচে প্রদান করা হলো.

On page SEO

টাইটেল ট্যাগ

টাইটেল ট্যাগ হলো ব্লগ বা কনটেন্ট এর শিরোনাম যা গুগল এ সার্ফ পেজ প্রদর্শিত হয়। মূলত যেকোনো ব্লগ বা কনটেন্ট এর টাইটেল দেখেই সবাই ওই পেজে ক্লিক করে। 

তো টাইটেল ট্যাগ অপ্টিমাইজ করার কিছু টিপস নিচে আলোচনা করা হলো-

  • টাইটেল ট্যাগ 50 – 60 অক্ষরের মধ্যে লিখুন 
  • মেইন টাইটেল এ ফোকাস কীওয়ার্ড রাখুন 
  • প্রতিটি পেজকে আলাদা আলাদা টাইটেল দিন
  • টাইটেল এ গুরুত্বপূর্ণ কীওয়ার্ড প্রথমে রাখুন
  • আপনার টার্গেট অডিয়েন্সদের টার্গেট করে টাইটেল সাজান 
Title tag

মেটা ডেসক্রিপশন

মূলত মেটা ডেস্ক্রিপশন এমনভাবে লিখতে যাতে আপনার ব্লগ বা কনটেন্ট একটি সারাংশ সবাই বুজতে পারে। 

  • মেটা ডেসক্রিপশন 50 – 300 অক্ষরের মধ্যে লিখতে হয়
  • আপনার মেটা ডেস্ক্রিপশনে এক্সট্রা কীওয়ার্ড ব্যবহার করা এড়িয়ে চলুন
  • আপনার মেটা ডেস্ক্রিপশনে  টার্গেটেড কীওয়ার্ড ব্যবহার করুন।
  • অডিয়েন্স এর জন্য আপনার কনটেন্ট এমন একটি সংক্ষিপ্ত বিবরণ দিন যাতে উক্ত বিষয়ের প্রতি সবাই ক্লিক করতে আগ্রহী হয়। 
  • বিবরণে কল-টু-অ্যাকশন টাইপ রাখুন, যেমন “বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন”

হেডার ট্যাগ

হেডার ট্যাগ আপনার ওয়েবপেজ এর টাইটেল এবং সাব-টাইটেল কে সনাক্ত করে এবং আপনার সাইটকে স্ট্রাকচার্ড ওয়েতে কনটেন্ট বা ব্লগ প্রেজেন্ট করে থাকে। 

নিচে প্রদত্ত অনুশীলন দ্বারা আপনার ট্যাগ অপ্টিমাইজ করতে পারেন:

  1. আপনার হেডার ট্যাগে অবশ্যই কীওয়ার্ড রাখুন
  2. আপনার কনটেন্টে  শুধুমাত্র একটি H1 ট্যাগ ব্যবহার করুন৷
  3. হেডার ট্যাগগুলির মিল রেখে আপনার বিষয়বস্তুর লিখুন
  4. ব্যাবহৃত ট্যাগগুলিকে শ্রেণিবিন্যাস করে কনটেন্ট কাঠামো সাজানোর চেষ্টা করুন
  5. পুরো ওয়েবসাইটে বা ওয়েবসাইটের অন্যান্য পেজে একই h1 ট্যাগগুলি পুনরাবৃত্তি করবেন না
  6. হেডার ট্যাগগুলিকে কখনই css দিয়ে হিডেন করে রাখবেন না
  7. হেডার ট্যাগে ফোকাস কীওয়ার্ড এর বাইরে কোনোকীওয়ার্ড রাখেবন না
  8. নিশ্চিত করুন ট্যাগগুলির দৈর্ঘ্য 20-70 অক্ষরের মধ্যে যেন হয়
Picture of smart brunette man working in office using silver laptop gesturing with finger up isolated over dark gray wall

Leave a Reply